থানায় হাজার কোটি টাকা ঘুষ-বাণিজ্য হয়: বি চৌধুরী

জাতীয়

বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ও যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, দেশের সমস্যার একমাত্র সমাধান একটি শান্তিপূর্ণ অবাধ নির্বাচন, যাতে সব দল অংশগ্রহণ করতে পারে।

মঙ্গলবার বিকালে কক্সবাজার জেলা বিকল্পধারা আয়োজিত যুক্তফ্রন্টের আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।বি. চৌধুরী বলেন, দেশে গত নয় বছর ধরে প্রশ্নপত্র ফাঁস হচ্ছে, ‘এর সুবিচার হওয়া দরকার। যারা জড়িত তাদের ফায়ারিং স্কোয়াডে দিয়ে মেরে ফেলা উচিত। এটা স্বয়ং বর্তমান রাষ্ট্রপতিও বলেছেন। এ ব্যাপারে সরকার কোনো পদক্ষেপ নিতে পারে নাই।’

সাবেক এই রাষ্ট্রপতি আরো বলেন, যেকেনো সরকারি অফিসে ঘুষ ছাড়া কাজ হয় না। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি, বাংলাদেশে এমন মন্ত্রণালয় খুব কম আছে যেখানে ঘুষ ছাড়া ন্যায়সংগত কাজও হয় না।

ঘুষ নিয়ে অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য উদ্ধৃত করে বি. চৌধুরী বলেন, ‘ঘুষ ছাড়া কাজ কীভাবে হবে। অর্থমন্ত্রী ঘুষকে জায়েজ করে বলেছেন এটা স্পিডমানি। তার কথায় ঘুষখোরদের সাহস বেড়ে যায়।’
বাংলাদেশের প্রায় সব থানায় ঘুষ-বাণিজ্য হয় বলে অভিযোগ করেন বি. চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘থানায় প্রতি রাতে হাজার কোটি টাকা ঘুষ-বাণিজ্য হয়।

অকারণে গ্রেফতার ও ছেড়ে দেওয়া এই ঘুষ-বাণিজ্যের জন্য কোনো ট্যাক্স দিতে হয় না।’নতুন আইজিপিকে গুণী মানুষ হিসেবে উল্লেখ করে সাবেক প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘তিনি (আইজিপি) এসব দেখবেন।’

যুক্তফ্রন্টের পতাকাতলে সমবেত হতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিকল্পধারা প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘দুই দল (বিএনপি-আ.লীগ) যেভাবে আমাদের ঠকিয়েছে তাদের আর আমরা ভোট দিব না। প্রধানমন্ত্রীর ১০ টাকা সের দরে চাল খাওয়ানোর কথা বলেছিরেন, তিনি তার কথা রাখেন নাই।’

কক্সবাজার জেলা বিকল্পধারার আহ্বায়ক মো. আলমের সভাপতিত্বে কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতায় করেন বিকল্পধারার মহাসাচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার ওমর ফারুক, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রূপক, চট্টগ্রাম নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেন।

এর আগে দুপুর ১টায় তিনি উখিয়ার বালুখালি রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে গিয়ে রোহিঙ্গাদের মরধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে। এ সময় দলের মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান ও দলীয় নেতাকর্মীরা তার সঙ্গে ছিলেন। উৎস- ঢাকাটাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.