কাউকেই ছাড় দিচ্ছে না তুরস্ক

তুরস্কের সংবাদ

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য আফরিনে অভিযান শুরুর পর কুর্দি ‘সন্ত্রাসীদের’ কোনো সমর্থককেই ছাড় দিচ্ছে না তুরস্ক। ওই অভিযানের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৬৬৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে তুর্কি কর্তৃপক্ষ।

আটকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সন্ত্রাসীদের পক্ষে প্রোপাগান্ডা ছাড়াচ্ছেন। এছাড়া সিরিয়া অভিযানের সমালোচনা করায় কুর্দি সমর্থিত প্রধান রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এইচডিপি) প্রধান পারভিন বুলদানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে তুরস্কের সরকারি আইনজীবীরা।

এইচডিপি তুরস্কের একমাত্র রাজনৈতিক দল, যারা সিরিয়ায় কুর্দিদের বিরুদ্ধে দেশটির সামরিক অভিযান ‘অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ’র বিরোধীতা করেছে।

তুরস্কের সরকারি আইনজীবীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, ‘সন্ত্রাসী প্রোপাগান্ডা ছড়ানো ও প্রকাশ্যে শত্রুতা উসকে দেয়ার অভিযোগে সংসদ সদস্য পারভিন বুলদান ও সিরি সুরেয়া অন্ডারের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে তুরস্ক।’

বর্তমানে তুর্কি পার্লামেন্টে ডেপুটি স্পিকারের দায়িত্ব পালন করছেন বুলদান। এর আগে আংকারায় এক দলীয় কংগ্রেসে অংশ নেন তিনি। কুর্দিস্তান ওয়ার্কাস পার্টির (পিকেকে) কারাদণ্ডপ্রাপ্ত নেতা আবদুল্লাহ ওজালানের সঙ্গে ছবি দেখা যাওয়ার পরই এই দুই এমপির বিরুদ্ধে তদন্ত ‍শুরু হয়েছে।

পিকেকে’কে সন্ত্রাসী সংগঠন বিবেচনা করে তুরস্ক, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র। কয়েক দশক ধরে তুর্কি প্রশাসনের বিরুদ্ধে রক্তাক্ত যুদ্ধে লিপ্ত পিকেকে।

তদন্তের ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাতে রাজি হয়নি তুর্কি কর্তৃপক্ষ।

কুর্দি হামলায় তুরস্কের ড্রোন ভূপাতিত

মার্কিন সমর্থিত সিরিয়ার কুর্দি গেরিলা গোষ্ঠী পিপল’স প্রোটেকশন ইউনিট বা ওয়াইপিজি তুরস্কের একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে। আফরিন এলাকার আাকাশসীমা থেকে এ ড্রোন ভূপাতিত করে কুর্দি গেরিলারা।

এক বিবৃতিতে ওয়াইপিজি গেরিলারা বলেছে, কুর্দি বাহিনী সোমবার সন্ধ্যায় তুরস্কের একটি বাইরেক্টার টিবি-২ দূরপাল্লার ড্রোন ভূপাতিত করেছে। এ ড্রোন মধ্যম মাত্রার উচ্চতায় উঠতে পারে। ড্রোনটি আফরিনের কুদে এলাকায় গোয়েন্দাগিরি করছিল বলে ওয়াইপিজি দাবি করেছে।

এর দুদিন আগে একটি বাইরেক্টার টিবি-২ ড্রোনের গায়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান স্বাক্ষর দিয়েছিলেন।

এদিকে, তুরস্কের সামরিক বাহিনী সোমবার জানিয়েছে, গত ২০ জানুয়ারি তুর্কি অভিযান শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত এক হাজার ৩৬৯ জন কুর্দি গেরিলা নিহত হয়েছে।

এছাড়া, তুর্কি বিমান হামলায় ওয়াইপিজি’র ১৫টি শক্ত ঘাঁটি ও অস্ত্র গুদাম ধ্বংস করা হয়েছে। সিরিয়ার কুর্দি গেরিলাদেরকে তুরস্ক সন্ত্রাসী হিসেবে মনে করে এবং তুর্কি গেরিলা গোষ্ঠী পিকেকে’র সঙ্গে এদের সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ করে আসছে।

অন্যদিকে, সিরিয়া সংকটে ওয়াইপিজি-কে সমর্থন ও মদদ দিয়ে আসছে আমেরিকা। এ নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আংকারার মারাত্মক টানাপড়েন দেখা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.